৩১ জনের বিরুদ্ধে মামলা : প্রাথমিক পরীক্ষায় জালিয়াতি

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পাস ও মোবাইল ডিভাইস ব্যবহারের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীদের উত্তর বলে দেয়া জালিয়াত চক্রের ১২ নারীসহ ৩১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে পুলিশ বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা ও পাবলিক পরীক্ষা অপরাধ আইনে কেন্দুয়া থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। শনিবার দুপুর ২টার দিকে তাদেরকে কোর্টে প্রেরণ করা হবে বলে জানায় পুলিশ।

নেত্রকোনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: শাহজাহান মিয়া জানান, জেলার কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল মান্নান ওরফে ছোটন-এর নেতৃত্ব দেন। পাঁচ থেকে ছয় বছর ধরে এই চক্র কাজ করে আসছে। এই প্রক্রিয়ায় অনেকেই শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পেয়ে অদ্যাবধি চাকরি করছেন বলেও জানা তিনি।

শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার ছয়ানি গ্রামের মনিরুজ্জামান ভুইয়া শামীমের বাড়ি থেকে আটক করে কেন্দুয়া থানা পুলিশ। বাকীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানায় পুলিশ।

এসময় তাদের নিকট থেকে ল্যাপটপ, মোবাইল ও প্রিন্টার জব্ধ করা হয়। আটককৃতরা নেত্রকোনা সদর, কেন্দুয়া, আটপাড়া, ময়মনসিংহের গৌরীপুরের বাসিন্দা। আটদের কেউ শিক্ষক, কেউবা বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা কলেজ পড়ুয়া ছাত্র।