‘ভদ্র মশা’ ডেঙ্গু ঠেকাতে লন্ডন থেকে আসছে

ডেঙ্গুবাহী এডিস মশা দমনে লন্ডন থেকে ‘ভদ্র মশা’ আমদানির চিন্তাভাবনা চলছে। আমদানিকৃত এ ‘ভদ্র মশা’ ঢাকা শহরের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় ছেড়ে দেয়া হবে। এ মশার বৈশিষ্ট্য হলো এরা নিজেরা কামড়ায় না।

এ ‘ভদ্র মশা’ ডেঙ্গুবাহী এডিস (স্ত্রী) মশার সঙ্গে মেলামেশার মাধ্যমে নতুন মশার প্রজনন ঘটাবে। নতুন জন্ম নেয়া মশা দুই সপ্তাহ পর এমনিতেই মরে যাবে। পরবর্তীতে যত মশা জন্মাবে সেগুলো ‘ভদ্র মশা’ হয়ে অর্থাৎ ডেঙ্গুবাহী এডিস মশা হয়ে জন্মাবে না, ভদ্র মশা হয়ে জন্মাবে।

মঙ্গলবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ গণমাধ্যমকে বলেন, এ ব্যাপারে সহায়তার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে অনুরোধ করা হয়েছে। লন্ডনের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার মাধ্যমে এ ধরনের কার্যকর মশা রয়েছে জানতে পেরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সহায়তা করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত না হতে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি। পাশাপাশি গণমাধ্যমকে সতর্ক থেকে আতঙ্ক না ছড়িয়ে বরং ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সহযোগী হয়ে কাজ করার অনুরোধ করেন।

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের মানুষকে মুক্ত রাখতে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এখন থেকে প্রতিদিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সব কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত সভা হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে প্রতি সপ্তাহে ডেঙ্গু বুলেটিন বের হবে।

তিনি আরো বলেন, জানুয়ারি থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ৭ হাজারেরও বেশি রোগী ভর্তি হলেও তাদের তিন-চতুর্থাংশেরও বেশি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।