ডেঙ্গু জ্বর কমলে রোগীর যত্ন

ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ গত কয়েক বছরের তুলনায় এ বছর অনেক বেশি। এই জ্বর এখন শুরু মাত্র ঢাকা শহরেই সীমাবদ্ধ নেই। দেশের বিভিন্ন জেলা শহগুলোতেও ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ও মারা যাওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে প্রায় প্রতিদিন। শিশু, বৃদ্ধ বা তরুণ সকল বয়সের রোগীই হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসছে।

কিন্তু শুধু ডেঙ্গু জ্বরের সময় যত্ন ও চিকিৎসা নিলেই কি হবে। এই জ্বরের পর রোগীর দরকার বিশেষ কিছু যত্ন। অনেকেরই এ বিষয়ে ধারণা না থাকায় রোগীর জীবন মারাত্নক ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যায়। তাই জেনে নিন জেঙ্গু জ্বর কমে গেলে কেমন যত্ন নেবেন।

বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানভীর ইসলাম জানান, ৩/৪ দিনে জ্বর কমে আসার পরই মূলত ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর জটিলতা বেশি দেখা যাচ্ছে।

তিনি বলছেন, রক্তের উপাদান কমে যাওয়া কিংবা রক্তের ঘনত্ব বেড়ে যাওয়ার মতো সমস্যা জ্বর চলে যাওয়ার পরেই দেখা যায়। তিনি আরো বলেন, জ্বর কমার পর রক্তের ভেতরের তরল অংশ বের হয়ে আসা, রক্ত ঘন হয়ে যাওয়া কিংবা রক্তের প্রেশার কমে যেতে পারে। যার চিকিৎসা আসলে একটাই তা হলো স্যালাইন নেয়া বা প্রয়োজনে স্যালাইন দেয়া।

এছাড়া রক্তের তরল অংশ কমে যাওয়ার কারণে নানা সমস্যা হয়। তাই প্রয়োজনীয় স্যালাইন দেয়ার পাশাপাশি ডাবের পানি, লেবুর শরবত প্রচুর পরিমাণে খেতে হবে। যাতে প্রেশার কমে রোগী শক সিনড্রোম পর্যন্ত না যায়। বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক রাজীব কুমার সাহা বলছেন, তরল খাবার ঠিকমতো খেলে ডেঙ্গু নিয়ে ভয়ের কোনো কারণ নেই। জ্বর কমলে রোগীকে সচেতনভাবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ডেঙ্গুর ভাইরাস শরীরে থাকে না, জ্বর চলে গেলে ভাইরাসটিও আস্তে আস্তে চলে যায়। তবে ভাইরাসের প্রতিক্রিয়া বিশেষ করে রক্তের তরল উপাদান কমে যাওয়ার সঠিক চিকিৎসা হওয়াটাই এর সমাধান।

চিকিৎসকরা বলেন, জ্বর চলে গেলই যে ভাল হয়ে গেলেন তা নয়। পুরোপুরি বিশ্রাম নিতে হবে এবং প্রচুর পরিমাণে তরল খাবার খেতে হবে।