এবার মাধ্যমিক শিক্ষায় বড় পরিবর্তন প্রাথমিক থেকে!

এবার প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা কারিকুলামে বড়ো ধরনের পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে সরকার। পাশাপাশি বদলে যেতে পারে পাঠ্যবইও। এছাড়া মাধ্যমিক স্তর থেকে ওইসব বিভাগ তুলে দিয়ে চালু করা হবে গুচ্ছ পদ্ধতি। এর ফলে ওই স্তরে বিজ্ঞান, মানবিক বা বাণিজ্য নামে কোনো বিষয় থাকবে না। সবাইকে সব বিষয় পড়তে হবে।, তবে থাকবে বিষয় পছন্দ করার সুযোগ।

২০২১ সাল থেকে পর্যায়ক্রমে নতুন কারিকুলাম চালু করার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে দফায় দফায় কর্মশালা ও সিদ্ধান্ত নিচ্ছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। এবারই প্রথমবারের মতো প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের কারিকুলাম একসঙ্গে পরিবর্তন ও সমন্বয় করা হচ্ছে। ২০২১ সালে প্রথম ও ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী নতুন কারিকুলাম ও বই পাবে। যথা সময়ে বই পৌঁছানোর লক্ষ্যমাত্রা হাতে নিয়ে এ স্তরের নতুন কারিকুলাম চূড়ান্ত হবে ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে।

২০২২ সালে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণি এবং ২০২৩ সালে পঞ্চম শ্রেণির পাঠ্যবইও পরিবর্তন করা হবে। পাশাপাশি ২০২২ সালে ৭ম শ্রেণি, নবম ও একাদশ শ্রেণির পাঠ্যবই পরিবর্তন হবে। আর ২০২৩ সালে অষ্টম শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে পরিবর্তন আনা হবে। কারিকুলামে বড় পরিবর্তন গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে মাধ্যমিক স্তর থেকে বিভাগ উঠিয়ে দেয়া সংশ্লিষ্টদের ধারণা দশম শ্রেণি পর্যন্ত সব শিক্ষার্থী সব বিষয়ে সমান ধারণা থাকা উচিত।

কারিকুলামে দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে পাবলিক পরীক্ষার সংখ্যা ও নম্বর কমিয়ে আনা। এর ফলে শ্রেণিকক্ষে ধারাবাহিক মূল্যায়নের পরিমাণ বাড়ানো হবে। শ্রেণিকক্ষে সব বিষয়ে ধারাবাহিক মূল্যায়নে ২০ নম্বর রাখা হবে। এতে পাবলিক পরীক্ষার নম্বর কমে যাবে। সুত্রে জানা যায়, নতুন কারিকুলাম নিয়ে খুব জোরেসোরেই কাজ করছে দায়িত্বপ্রাপ্তরা। নতুন কারিকুলামের ওপর ভিত্তি করে পরিবর্তন আনা হবে পাঠ্যপুস্তকেও।

২০২১ সালে যেহেতু অষ্টম শ্রেণির কারিকুলাম পরিবর্তন হবে, তাই আগামী বছরের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে এ কারিকুলামের কাজ চূড়ান্ত করা হবে। তবে আগে প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের জন্য পৃথক সময়ে কারিকুলাম পারবর্তন হওয়ার কারণে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের কারিকুলামে কোনো সমন্বয় থাকবে না।