ডিপিএড বোর্ড প্রাথমিকের ডিপিএড কোর্সের সনদ প্রদান করবে

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ হতে দেশের সকল পিটিআইসমূহের ডিপিএড কোর্স পরিচালনা, শিক্ষাক্রম পরিচালনা, কোর্স প্রণয়ন, কোর্স মনিটরিং, কোর্সের মানোন্নয়ন, মূল্যায়ন, ফলাফল প্রস্তুত,ফলাফল প্রকাশ ও সংরক্ষণ এবং অন্যান্য কার্যক্রমসহ ডিপিএড সনদ প্রদান করবে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইন প্রাইমারি এডুকেশন বোর্ড। জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমির বোর্ড অব গভর্নরসের ৩৭তম সভায় `ডিপ্লোমা ইন প্রাইমারি এডুকেশন পরিচালনা নীতিমালা-২০১৯` এর অনুমোদন দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ।

ডিপিএড কোর্সের যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য ১৫ সদস্যবিশিষ্ট এই বোর্ডের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমির (নেপ) মহাপরিচালক।

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমির পরিচালক মো. ইউছুফ আলী  বলেন, ২০১৪ সালে নেপের সাথে একটি চুক্তি অনুযায়ি ২০১৮ এর জুন পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থায় প্রশিক্ষণ বিষয়ক ডিপিএড কোর্সের সনদ প্রদানসহ মূল্যায়নের কাজ করতো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর।

এখন থেকে অর্থাৎ ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ হতে এই কোর্সের সাথ আইইআর যুক্ত থাকছে না, যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করবে ডিপ্লোমা ইন প্রাইমারি এডুকেশন বোর্ড । এর জন্য ১৫ সদস্যের একটি বডি তৈরি করা হয়েছে। এছাড়া মাঠ লেভেলে জেলা শিক্ষা অফিস, উপজেলা শিক্ষা অফিস, উপজেলা রিসার্চ সেন্টারের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তকর্তারা যুক্ত থেকে এই কোর্সের কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

উল্লেখ্য, ২০১২ সাল থেকে পূর্বের সিইনএড কোর্সটির কার্যক্রম এবং মেয়াদ পরিবর্তন করে এর নামকরণ করা হয় ডিপিএড। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৮ পর্যন্ত এই ডিপিএড কোর্সের পরীক্ষা, মূল্যায়ন, পর্যবেক্ষণ এবং সনদ প্রদান করতো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর ( ইন্সটিটিউট অব এডুকেশনএন্ড রিসার্চ) ।