সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য প্রতিমন্ত্রীর নতুন উদ্যোগ!

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, শিক্ষার্থীদের গণিত ভীতি দূর করার জন্য দেশের ৮০ টি বিদ্যালয়ে `গণিত অলিম্পিয়াড কৌশল প্রয়োগের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের গাণিতিক দক্ষতা বৃদ্ধির সম্ভাব্যতা যাচাই` শীর্ষক প্রকল্প সফলতার সাথে সম্পন্ন হয়েছে। খেলার ছলে শিক্ষার্থীদের গণিত শিখানোর এই বিশেষ পদ্ধতিটি দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এখন চালু করা হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশানে ব্র‍্যাক শিক্ষা কর্মসূচি, বাংলাদেশ আয়োজিত দেশের উত্তর – পূর্বাঞ্চলের জলাবদ্ধ হাওর এলাকায় শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষার জন্য শিক্ষাতরী কার্যক্রমের ওপর সম্প্রতি গবেষণায় অর্জিত ফলাফল পর্যালোচনা প্রতিবেদন প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মুজিববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে দেশের দারিদ্র্য পীড়িত এলাকার ১৬ টি উপজেলার ২ হাজার ১৬৬ টি বিদ্যালয়ের ৪ লাখ ১০ হাজার ২৩৮ জন শিক্ষার্থীর মাঝে স্কুল মিল কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। আগামী বছর থেকে সারাদেশের এ কার্যক্রম চালু করা হবে। এতে শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধ,বিদ্যালয়ে উপস্থিতি বৃদ্ধি ও পুষ্টিমান বৃদ্ধি পাবে।

তিনি বলেন, দেশের শিক্ষাব্যবস্থা উন্নয়নে বর্তমান সরকার অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে। উত্তর -পূর্বাঞ্চলের জলাবদ্ধ হাওর এলাকায় দারিদ্র্যতা ও যোগাযোগ প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও সরকার শিক্ষা উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে চলেছে।

প্রতিমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ব্র‍্যাক শিক্ষা কর্মসূচি, বাংলাদেশ কর্তৃক উত্তর -পূর্বাঞ্চলের জলাবদ্ধ হাওর এলাকায় শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষার ওপর প্রকাশিত প্রতিবেদন হতে লব্ধ অভিজ্ঞতা আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থপনায় সহযোগী হবে।

অনুষ্ঠানে গবেষক, ব্র‍্যাক,সরকারি – বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।