দুই শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা বরখাস্ত স্ত্রীর মামলায়

দুইজন শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ দুই কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দুইজনের স্ত্রী মামলা দায়ের করায় তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্ত দুই কর্মকর্তা হলেন, যশোর সরকারি এম এম কলেজের বাংলা বিষয়ের প্রভাষক মারফুজ্জামান ও বরিশালের সরকারি গৌরনদী কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক মিল্টন হালদার।

গত ২৯ জানুয়ারি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এ দুই কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করে আদেশ জারি করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র গণমাধ্যমকে জানায়, মামলা দায়ের হওয়ায় সরকারি বিধি অনুসারে এ দুই কর্মকর্তাতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিসিএসআর (পার্ট-১) এর ৭৩ বিধি ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের আদেশে বিষয়টি উল্লেখ আছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, যশোর সরকারি এম এম কলেজের বাংলা বিষয়ের প্রভাষক মারফুজ্জামানের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী কেয়া খাতুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ১৮ এপ্রিল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

অন্যদিকে বরিশালের সরকারি গৌরনদী কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক মিল্টন হালদারের বিরুদ্ধে ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ২ এপ্রিল ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন তার স্ত্রী দ্বীপান্বিতা হালদার। এ মামলায় গত বছরের ৩১ আগস্ট মিল্টন হালদারকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাই, সরকারি বিধি অনুযায়ী এ কর্মকর্তাকে ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ৩১ আগস্ট থেকে ভূতাপেক্ষ বরখাস্ত করা হয়।