প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা ২০১৩ রহিত , চালু নিয়োগ বিধিমাল ২০১৯ইং

প্রাথমিক শিক্ষক  নিয়োগ বিধিমালা ২০১৩ রহিত

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বিধিমাল ১৯৮৩ ইং  বাতিল ক্রমে অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির আদেশে ১০-০২-১৯৯১ ইং তারিখে এই বিধিমালা ১৯৯১ নামে অভিহিত হইবে। এই বিধিমালা অনুযায়ি ০২-০৯-২০১৩ ইং তারিখ পযর্ন্ত প্রাথমিকের সকল কার‌্যক্রম সম্পূর্ন হয়েছে। তারপর যখন ০৩-০৯-২০১৩ ইং তারিখে ২য় গেজেট জারী হলো সেই দিন থেকে প্রাথমিকের সকল কার‌্যক্রম এই বিধিমালার অধীন সম্পূর্ন হতে হবে এবং ১৯৯১ এর গেজেট রহিত করণ ও হেফাজত হিসাবে থাকবে।

তারপর আসল নুতন জাতীয়করণকৃত শিক্ষকগণের পালা। তাদেরকে সরকারি করন করার জন্য নতুনভাবে ০৩-০৯-২০১৩ ইং এর গেজেটের আলোকে তাদের জন্য ২৯-০৯-২০১৩ ইং তারিখে আরো একটি সহায়ক গেজেট প্রকাশ করলেন যাতে রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপ-সচিব আবুল কালাম স্যার স্বাক্ষরিত।

উল্লেখ্য যে, সরকার যখন কোন গেজেট জারী করেন তখন উপ-সচিব অথবা অন্য কোন সচিবের নাম থাকে। এরপর ০৪-০৪-২০১৯ ইং তারিখ রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে সিনিয়র সচিব মোঃ আকরাম-আল-হোসেন  স্বাক্ষরিত  সর্বশেষ গেজেট । ০৪-০৪-২০১৯ইং গেজেট জারী হওয়ার সাথে সাথে রহিতকরণ  ও হেফাজত হয়ে যায় ২০১৩ ইং গেজেট। একটা গেজেটের সাথে অন্য একটা অন্য কোন গেজেটের সম্পুর্ন ও সুক্ষ মিল রয়েছে।

বর্তমানে যে গেজেট জারী হয়েছে তার মাধ্যমে সামনে যত কার‌্যক্রম আছে এই গেজেট অনুযায়ী করতে হবে। পিছনে যত গেজেট জারী হয়েছিল সেই সময়ে সেই গেজেট অনুযায়ী বলবৎ ছিল।

সুতরাং যে সকল শিক্ষক গণ যখন নিয়োগ পেয়েছেন তখনকার গেজেট অনুযায়ী নিয়োগ পেয়েছেন। তাই কোন শিক্ষককে বর্তমান গেজেট অনুযায়ী বাদ বা হেয় করার কোন সুযোগ নাই। সর্বশেষ পরিপত্র ৩০-০৯-২০২০ ইং তারিখে জ্যেষ্ঠতার বিষয়ে ২০১৯ ইং এর  গেজেট যুক্ত হয়েছে।