সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সব চালককে ‘ডোপ টেস্ট’ করোনার নির্দেশ : প্রধানমন্ত্রী

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সব চালককে ‘ডোপ টেস্ট’ করোনারও নির্দেশ দেন সরকার প্রধান। তিনি বলেন, যারা গাড়ি চালাচ্ছে তারা মাদক সেবন করে কিনা? তাদের ডোপ টেস্টের মাধ্যমে তা পরীক্ষা করা দরকার। প্রত্যেকটা চালকের এ পরীক্ষাটা একান্তভাবে অপরিহার্য। এ পরীক্ষাটা করতে হবে।

নিরাপদ সড়ক দিবসের দিনে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য নতুন নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে প্রত্যেকটা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক রুলের পোস্টার লাগিয়ে রাখতে হবে।

বৃহস্পতিবার সড়ক দিবসের অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালে যুক্ত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সরকারপ্রধান বলেন, ট্রাফিক আইন মেনে চলা সবার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। চালকদের পাশাপাশি পথচারীদেরও সচেতন থাকতে হবে। সেখানে সচেতনতার খুব অভাব। বারবার বলছি এখনো বলছি, ছোট বাচ্চাদের স্কুলজীবন থেকে শুরু করে প্রত্যেকটা জায়গায় এই ট্রাফিক আইন সম্পর্কে শিক্ষা দিতে হবে। তাদের সচেতন করা প্রয়োজন।

এ কারণে প্রত্যেকটা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত সব জায়গায় ওই ট্রাফিক রুলের পোস্টার লাগিয়ে রাখতে হবে যেন শিশুসহ মানুষ সচেতন হয় ।

সড়ক নির্মাণে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার তাগিদ দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, দেশে প্রচুর পরিমাণে সড়ক, সেতু, কালভার্ট নির্মাণ করা হচ্ছে। এসব নির্মাণে যেন প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করা হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পাশাপাশি স্থানীয় মানুষ যাতে এসব থেকে উপকৃত হয় তার ব্যবস্থা নিতে হবে।

অনুষ্ঠানে সড়কের উন্নয়নে সরকারের গৃহীত নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন বঙ্গবন্ধু কন্যা। তিনি বলেন, রাজধানীর সঙ্গে দেশের জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের যোগাযোগ ব্যবস্থা করেছে সরকার। যোগাযোগ ব্যবস্থার আরও উন্নয়নে মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। দুর্ঘটনা এড়াতে সড়কের বাঁক কমানো হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, সড়ক শুধু তৈরিই করিনি সেই সড়ক নিরাপদ করারও চেষ্টা করেছি। কোথায় কোথায় সড়ক দুর্ঘটনা বেশি হচ্ছে, কেন বেশি হচ্ছে সেসব দিকে নজর রেখেছি। মহাসড়কের যেখানে যেখানে দুর্ঘটনা হয়, সেই জায়গাগুলো নিরাপদ করার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।