প্রাথমিক শিক্ষকদের ডিজিটাল বদলি প্রসঙ্গে

 আগামী বছর থেকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে অনলাইনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলি কার্যক্রম শুরু করতে চায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)। এ লক্ষ্যে বদলি কার্যক্রম পরিচালনা করার সফটওয়্যারের কাজ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ রতে সময় জুড়ে দেয়া হয়েছে।

ডিপিই সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরেই অনলাইনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলির লক্ষ্য ছিল। তবে এ জন্য প্রস্তুতকৃত সফটওয়্যারে নতুন বিষয়গুলো ইনপুট দেয়া নিয়ে বদলি কার্যক্রম বিলম্বিত হয়। এ বিষয়গুলো চূড়ান্ত হওয়ার সময়ই অবসরে যান প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ও সাবেক সিনিয়র সচিব মো. আকরাম আল হোসেন। ফলে নভেম্বর থেকে পরীক্ষামূলকভাবে এ সফটওয়্যারের মাধ্যমে কিছু বদলি করার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে গেছে।

জানা গেছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলি নিয়ে নানা ধরনের অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। এসব বন্ধে বদলি ব্যবস্থা অনলাইনভিত্তিক করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ইতোমধ্যে সফটওয়্যার তৈরির কাজের অনেক অগ্রগতি হয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ও ডিপিই’র মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে এটি উপস্থাপন করা হয়েছে।

জানতে চাইলে ডিপিইর মহাপরিচালক এ এম মনসুর আলম বলেন আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যে সফটওয়্যারের কাজ শেষ করার সময় বেধে দেওয়া হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে সকল কাজ শেষ হলে আগামী বছর থেকে অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষক বদলি কার্যক্রম শুরু করা হতে পারে।