আইবাস++ (ইন্ট্রিগ্রেটেড বাজেট এন্ড একাউন্টিং সিস্টেম) সমাধান চলতি সপ্তাহে: ডিপিই মহাপরিচালক

রবিবার  ( ১০জানুয়ারি) ডিপিই মহাপরিচালক গণমাধ্যমের  সঙ্গে আলাপকালে বলেন,‘আইবাস++ (ইন্ট্রিগ্রেটেড বাজেট এন্ড একাউন্টিং সিস্টেম) সমাধান চলতি সপ্তাহে। অর্থ মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে ডিপিইকে কথা দিয়েছে।

, সরকারি প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেড দিয়ে ৯ ফেব্রুয়ারি প্রজ্ঞাপন জারি করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরপর দীর্ঘ ১১ মাস পেরিয়ে গেলেও নতুন গ্রেডে প্রায় সাড়ে তিন লাখ শিক্ষক এখনো বেতন ভাতা সুবিধা পাচ্ছেন না। ফলে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে এ নিয়ে অসন্তোষ দেখা দেয়।

প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক মাহবুবর রহমান বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, ‘শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসনে দীর্ঘ আন্দোলনের পর সরকারের কাছে আমরা ১১তম গ্রেডে বেতন দাবি করেছি। এরপর ১৩তম গ্রেড পেয়েছি। অথচ আজও তা বাস্তবায়ন করা হয়নি।’

এর আগে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বাজেট-১) নাজমা মোবারক বলেছিলেন, ‘আমরা অনলাইন প্লাটফর্মে অন্তর্ভুক্ত করে দিচ্ছি। দু’দিন আগে মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন শাখা থেকে অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে ১ মাস পার হলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।’

বিষয়টির অগ্রগতির বিষয়ে জানতে রোববার সকালে নাজমা মোবারকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে মিটিং এ থাকায় তার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে সারা দেশে ৬৫ হাজার ৬২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩ লাখ ৫২ হাজার সহকারী শিক্ষক আছেন। তাদের ৬০ শতাংশই নারী। চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন দেয়ার সিদ্ধান্ত দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু আইবাস++ এ আটকে থাকায় দীর্ঘ ১১ মাস পার হলেও এখনো ১৩তম গ্রেড বাস্তবায়ন করা হয়নি।